Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

০১। প্রাথমিক সমিতি/দল(পুরুষ/মহিলা) গঠন,ঋণ গ্রহনে পরামর্শ প্রদান ও এতদসংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য এবং ফরম্ সরবরাহ।

০২। সদস্যদের শেয়ার ও সঞ্চয় আমানত সংগ্রহের মাধ্যমে নিজস্ব পুঁজি গঠন।

০৩। সমিতির সদস্যগনকে সহজ শর্তে কৃষি উৎপাদন ও কৃষি উপকরনের জন্য (সার,বীজ,কীটনাশক, এবং সেচ যন্ত্রপাতি) ঋণ প্রদান।

০৪। সমন্বিত দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচী(সদাবিক),পল্লী প্রগতি প্রকল্প(পঃপঃপ্রঃ),আদর্শ গ্রাম প্রকল্প-২ এর আওতায় অনানুষ্ঠানিক দল গঠন এবং উৎপাদনমূখী ও আয়বৃদ্ধিমূলক কর্মকান্ডের জন্য ঋণ প্রদান।

০৫। আনুষ্ঠানিক সদস্যদের সমিতি নিবন্ধনের পরপরই এবং অনানুষ্ঠানিক দল গঠনের ০৮(আট) সপ্তাহ পর সদস্যদের ঋণ প্রদান করা হয়।

০৬। সমবায়ীদের উৎপাদিত শষ্যের বাজারজাত করনের সুযোগ সৃষ্টি এবং নায্যমূল্য প্রাপ্তিতে সহায়তা।

০৭। গ্রামের মানুষকে গ্রাম সংগঠনের আওতায় এনে সোসাল ক্যাপিটাল বৃদ্ধি, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের দক্ষতা বা হিউম্যান ক্যপিটাল বৃদ্ধি এবং মাইক্রোসেভিংস্ কর্মসূচীর আওতায় তাদের ব্যক্তিগত পুঁজি সৃষ্টি তথা অর্থনৈতিক ক্যাপিটাল বৃদ্ধির মাধ্যমে সামগ্রিক দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে ‘‘ একটি বাড়ি একটি খামার’’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

০৮। গ্রামের মানুষের অংশীদারিত্বের মাধ্যমে গ্রাম উন্নয়নের লক্ষ্যে ‘‘ অংশীদারিত্বমূলক পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প-২ (পিআরডিপি-২)’’বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

০৯। নারীর ক্ষমতায়ন ও নারী নেতৃত্ব বিকাশে সচেতনতা বৃদ্ধি, নারী নির্যাতন রোধ ও যৌতুক প্রথা নির্মূলে সচেতনতা সৃষ্টিতে সহায়তা।

১০। সদস্যদের বয়স্ক শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও পরিবার পরিকল্পনা ইত্যাদি বিষয়ে পরামর্শ ও সেবা।

১১। বৃক্ষরোপন ও স্যানিটেশন সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি কল্পে পরামর্শ ও সহযোগিতা।

১২। অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের পোষ্যদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে নামমাত্র সেবা মূল্যের বিনিময়ে ঋণ প্রদান।

১৩। গ্রামীন দরিদ্র মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সহযোগিতা প্রদান এবং  গ্রামীন নেতৃত্বের বিকাশ ও দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে সম্পৃক্তকরণ।

১৪। উপজেলায় বসবাসরত যে কোন ব্যক্তিকে সেবা সংক্রান্ত তথ্য প্রদানে অত্রাফিস প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

 

*এ অফিসের কোন কর্মকর্তা/কর্মচারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তার নিকট উত্থাপন করা হলে তার প্রতিকার করা হবে।

*ঋণ বাবদ মঞ্জুরীকৃত সমুদয় টাকা বুঝে নিন। সমুদয় টাকা বুঝে না পেয়ে ঋণ বিতরনের সনদ পত্রে স্বাক্ষর করবেন না।